Breaking News
Home / খবর / মোদি সরকার মুখোশ মাত্র আসল শত্রু পুঁজিপতি শ্রেণি

মোদি সরকার মুখোশ মাত্র আসল শত্রু পুঁজিপতি শ্রেণি

কৃষক আন্দোলনের ঐতিহাসিক জয়ের পর এআইকেকেএমএস-এর সর্বভারতীয় সভাপতি কমরেড সত্যবান ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড শঙ্কর ঘোষ ১০ ডিসেম্বর এক বিবৃতিতে বলেন,

ভারতবর্ষের গণআন্দোলনের ইতিহাসে কৃষক আন্দোলনের এই জয় নিঃসন্দেহে এক গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায়। সংগ্রামী কৃষক জনগণ কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের সমস্ত দমন পীড়ন উপেক্ষা করে অসীম বীরত্বের সাথে এই লড়াই চালিয়ে গেছেন, সাত শতাধিক কৃষক আত্মাহুতি দিয়েছেন এবং শেষ পর্যন্ত দেশি-বিদেশি পুঁজিপতি ও তাদের সেবাদাসদের মাথা নত করতে বাধ্য করেছেন। এক বছর ধরে চলা এই কৃষক আন্দোলনের চাপে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার কৃষকদের প্রায় সব দাবি মেনে নিতে বাধ্য হয়েছে। এই জয় জনগণের মধ্যে একটা আত্মপ্রত্যয়ের জন্ম দিয়েছে। জনগণ গভীরভাবে উপলব্ধি করেছেন যদি সংঘবদ্ধ হওয়া যায়, প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়ে দীর্ঘস্থায়ী মরণপণ আন্দোলন গড়ে তোলা যায়, তা হলে একটা বর্বর ফ্যাসিস্ট সরকারকেও পরাস্ত করা যায়। দৃষ্টান্তসৃষ্টিকারী এই জয় নিঃসন্দেহে পুঁজিপতি শ্রেণির শোষণ জুলুমের বিরুদ্ধে সংগ্রামরত সমস্ত অংশের মানুষের মধ্যে প্রবল উৎসাহ সৃষ্টি করবে। ইতিহাস সৃষ্টিকারী সংগ্রামী কৃষকদের আমরা লাল সেলাম জানাই।

কিন্তু সংকটগ্রস্ত পুঁজিপতি শ্রেণি জনগণের উপর একটার পর একটা আক্রমণ নামিয়ে আনবে এবং যত দিন পর্যন্ত আন্দোলনের আঘাতে পুঁজিপতি শ্রেণিকে রাষ্ট্রক্ষমতা থেকে উৎখাত করে সমস্ত ধরনের জুলুম ও শোষণমুক্ত একটা নতুন সমাজ প্রতিষ্ঠা করা না যাচ্ছে তত দিন পর্যন্ত জনগণকে ভবিষ্যতে আরও বড় আন্দোলন সংগঠিত করার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। এই আন্দোলন প্রকৃতপক্ষে আমাদের এই শিক্ষা দিয়ে গেল, বহুজাতিক পুঁজিই জনগণের আসল শত্রু, মোদি সরকার তাদের মুখোশ ছাড়া আর কিছু নয়। যদিও এই শিক্ষা বর্তমানে প্রাথমিক স্তরের একটা উপলব্ধি মাত্র, কিন্তু এই উপলব্ধি জনগণের চেতনায় আরও স্পষ্ট হয়ে প্রতিভাত হবেই এবং বিপ্লবী শক্তির দীর্ঘ ও কষ্টসাধ্য প্রচেষ্টার পথেই নিপীড়িত জনগণের মধ্যে বিপ্লবী চেতনার জন্ম দেবে। মহান নেতা কমরেড শিবদাস ঘোষ এই শিক্ষাই আমাদের দিয়েছেন।

বহুজাতিক পুঁজির আক্রমণের বিরুদ্ধে এখন শ্রমিক-কৃষক ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলছেন। শ্রমিক-কৃষকের এই ঐক্য ক্রমাগত শক্তিশালী হবে এবং ভবিষ্যতে আরও বড় ও মহত্তর আন্দোলনের জন্ম দেবে। আন্দোলনের বিজয়ের এই আনন্দের মধ্যে নানা ধরনের গণসংগ্রাম কমিটি গঠন করে আন্দোলনকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে আমরা জনগণকে আহ্বান জানাচ্ছি।

গণদাবী ৭৪ বর্ষ ১৯ সংখ্যা ১৭ ডিসেম্বর ২০২১