Breaking News
Home / খবর / মদ বন্ধের দাবিতে নারী নিগ্রহ বিরোধী নাগরিক কমিটির ডেপুটেশন

মদ বন্ধের দাবিতে নারী নিগ্রহ বিরোধী নাগরিক কমিটির ডেপুটেশন

কলকাতা

সমাজে নিত্যদিন নারী নির্যাতন ও পারিবারিক অশান্তির পিছনে মদের ক্ষতিকারক প্রভাবের কথা জানা সত্তে্বও অতিমারি ও লকডাউন পরিস্থিতির মধ্যেই মদের দোকান ও বারগুলি রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা রাখার সরকারি সিদ্ধান্তে শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষ স্তম্ভিত। অতিমারি ও লকডাউনে কাজ হারানো মানুষ যেখানে দু’বেলা খাবার জোটাতে পারছেন না, সেখানে সরকার ও প্রশাসনের উচিত ছিল মদ বন্ধে সদর্থক ভূমিকা নেওয়া। তার পরিবর্তে তাদের এই সিদ্ধান্তে পরিবারগুলি আরও বিপন্ন হবে। এই অবস্থায় নারী নিগ্রহ বিরোধী নাগরিক কমিটির উদ্যোগে ২৫ জুন সারা রাজ্যে বিভিন্ন

প্রশাসনিক ভবনে মদের দোকান বন্ধ ও রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ করার দাবিতে বিক্ষোভ ডেপুটেশনের কর্মসূচি পালিত হয়।

২৩ জুন মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অনলাইন ডেপুটেশন দেওয়া হয়। ২৫ জুন জেলায় জেলায় প্রশাসনিক ভবন ও আবগারি দপ্তরে মদের দোকান বন্ধ ও রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ করার দাবিতে বিক্ষোভ দেখানো হয়। কলকাতায় রাজ্য সম্পাদিকা কল্পনা দত্তের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধিদল রাজ্য আবগারি দপ্তরের আধিকারিকের হাতে দাবিপত্র তুলে দেন। এতে বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ অনিতা রায়ও উপস্থিত ছিলেন। ওই দিন পূর্বমেদিনীপুর জেলাশাসক ও জেলা আবগারি দফতর এবং পাঁশকুড়া আবগারি দফতরে ডেপুটেশন দেয় কমিটি। জেলাশাসক দফতরে মঞ্জুশ্রী মাইতির নেতৃত্বে চন্দনা বেরা, প্রতিমা জানা, জয়শ্রী সামন্তের এক প্রতিনিধি দল অতিরিক্তজেলাশাসক ও আবগারি অফিসারের হাতে দাবিপত্র তুলে দেন। শ্রাবণী মণ্ডলের নেতৃত্বে পাঁশকুড়াতেও আবগারি দফতরে ডেপুটেশন দেওয়া হয়।

বেলদা

পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদায় এ দিন একই দাবিতে আবগারি দফতরে ডেপুটেশন দেয় কমিটি। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন কণিকা ধাড়া, কবিতাবেরা, প্রীতিলতা বরম, অর্চনা মণ্ডল, কাজল দাস প্রমুখ।

গণদাবী ৭৩ বর্ষ ৩৭ সংখ্যা