Breaking News
Home / খবর / বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে জেলায় জেলায় বিক্ষোভ

বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে জেলায় জেলায় বিক্ষোভ

কোচবিহার : নাগরিক প্রতিরোধ মঞ্চের ডাকে কর্মসূচির অঙ্গ হিসেবে সংগঠনের কোচবিহার শাখার পক্ষ থেকে ১৫ অক্টোবর কেন্দ্রীয় সরকারের বেসরকারিকরণ নীতির বিরুদ্ধে সুসজ্জিত বিক্ষোভ মিছিল শহরে জুড়ে পথ পরিক্রমা করে। ক্ষুদিরাম মূর্তির পাদদেশে থেকে শুরু হয়ে মিছিল গোটা শহর পরিক্রমা করে সাগরদিঘি সংলগ্ন স্টেট ব্যাংক শাখার সামনে পৌঁছায় এবং নাগরিক প্রতিরোধ মঞ্চের চার জনের একটি প্রতিনিধি দল রিজিওনাল ম্যানেজারকে স্মারকলিপি প্রদান করে। উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণ ব্যাংকের প্রাক্তন কর্মী শোভা বল, নাগরিক প্রতিরোধ মঞ্চের রাজ্য স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য নেপাল মিত্র সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

নদীয়া : রেল সহ বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বেসরকারিকরণ করে দেশের কোটি কোটি মানুষের ক্ষুধার অন্ন কেড়ে নেওয়ার প্রতিবাদে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষের উপস্থিতিতে নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগর স্টেশন চত্বরে ১৫ অক্টোবর একটি প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশিষ্ট শিক্ষক হররোজ আলির সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, নাগরিক প্রতিরোধ মঞ্চে র রাজ্য প্রতিনিধি দীপকচৌধুরী, সাংস্কৃতিক আন্দোলনের কর্মী শেষাদ্রী রায়, হকার্স ইউনিয়নের নেতা তপন কুমার ব্যানার্জী, বঙ্গীয় প্রাদেশিক ব্যাংক কর্মচারী সমিতির নদীয়া জেলা সভাপতি অরুণ কুমার মজুমদার। এছাড়াও বিভিন্ন গণআন্দোলনের স্থানীয় নেতৃত্ব বক্তব্য রাখেন। বক্তারা সকলেই গভীর উদ্বেগের সঙ্গে বেসরকারিকরণ প্রতিরোধে আপামর সাধারণ মানুষকে নিয়ে দীর্ঘস্থায়ী, লাগাতার, সুসংগঠিত যৌথ আন্দোলন গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তা ব্যক্ত করেন। সভার শেষে সর্বসম্মতিক্রমে সাতজন সদস্যসহ ‘নাগরিক প্রতিরোধ মঞ্চ, কৃষ্ণনগর শাখা’র প্রস্তুতি কমিটি গঠিত হয় এবং ওই কমিটির পক্ষ থেকে কৃষ্ণরনগর রেল স্টেশন কর্তৃপক্ষকে একটি স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

জেলার রানাঘাট ও শান্তিপুরেও অনুরূপ ভাবে স্থানীয় বিশিষ্ট মানুষ এবং গণআন্দোলনের প্রতিনিধিদের নিয়ে প্রতিবাদ সভা হয়। ওই দুটি স্থানেও নাগরিক প্রতিরোধ মঞ্চের শাখা গঠিত হয়।

(ডিজিটাল গণদাবী-৭৩ বর্ষ ৯ সংখ্যা_১৭ অক্টোবর, ২০২০)