Breaking News
Home / অন্য রাজ্যের খবর / বিহার বিধানসভা নির্বাচন  ২৬টি কেন্দ্রে প্রার্থী এস ইউ সি আই (সি)-র

বিহার বিধানসভা নির্বাচন  ২৬টি কেন্দ্রে প্রার্থী এস ইউ সি আই (সি)-র

বিহার বিধানসভা নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে এস ইউ সি আই (কমিউনিস্ট) দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এবং বিহার রাজ্য সম্পাদক কমরেড অরুণ কুমার সিং ৩০ সেপ্টেম্বর পাটনায় অনুষ্ঠিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, ৪ জুন এবং ১৩ জুলাই দেশের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার, বিহারের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক সহ সর্বস্তরে চিঠি দিয়ে দলের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়েছিল, এই করোনা পরিস্থিতিতে নির্বাচনের দিকে মন না দিয়ে সরকার কাজ হারানো, রোজগার হারানো দুর্দশাগ্রস্ত সাধারণ মানুষ ও পরিযায়ী শ্রমিকদের সমস্যা সমাধানে সমস্ত শক্তি এবং প্রচেষ্টা নিয়োজিত করুক। কিন্তু তারা কর্ণপাত করেনি। তিনি বলেন, বিজেপি সরকারের ‘আচ্ছে দিন’ বিহারের মানুষের নাভিশ্বাস তুলে দিয়েছে। সরকার একের পর এক জনবিরোধী পদক্ষেপ নিয়ে সরকারি ক্ষেত্রগুলিকে করপোরেট মালিকদের হাতে তুলে দিচ্ছে। তার ফল বিহারের মানুষকেও সমানভাবে ভোগ করতে হচ্ছে।

কৃষি আইন, শ্রম আইনের মাধ্যমে বিজেপি সরকার চাষি এবং শ্রমিকের স্বার্থ বহুজাতিক করপোরেট মালিকদের কাছে বিকিয়ে দিয়েছে। বেকারি ৪৫ বছরে সর্বোচ্চ স্থানে পৌঁছেছে। অথচ সরকারি ক্ষেত্রে লক্ষ লক্ষ শূন্য পদে সরকার নিয়োগ করছে না।

তিনি বলেন, বিহারের জেডিইউ বিজেপি জোট সরকার ১৫ বছরে পূর্বতন কংগ্রেস এবং তার পরবর্তী রাষ্ট্রীয় জনতা দলের দুর্নীতি ও জনবিরোধী শাসনের পদাঙ্কই অনুসরণ করছে। স্বাস্থ্য-শিক্ষা-পরিবহণ-আইন-শৃঙ্খলা-নারী নিরাপত্তা সব দিক থেকেই এই সরকার চূড়ান্ত অপদার্থতার পরিচয় দিয়েছে। পিপিপি-র নামে সমস্ত ক্ষেত্রে বেসরকারিকরণের ছক তারা মহকুমা পর্যন্ত বিস্তৃত করেছে। জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে স্কিম ওয়ার্কার থেকে শিক্ষক যাঁরাই প্রতিবাদ করেছেন নীতিশ কুমার সরকার তাদের উপর পুলিশ দিয়ে নির্যাতন চালিয়েছে। মুজফফরপুরের হোমে বালিকাদের উপর অত্যাচার এই সরকারের আমলে আইন শৃঙ্খলার হাল কেমন, তার একটি বড় নিদর্শন। অনাহারজনিত পরিস্থিতিতে এনকেফেলাইটিসে শিশু মৃত্যু রুখতে, হাসপাতালগুলির চরম দুর্দশা দূর করতে জেডিইউ-বিজেপি সরকারের কোনও মাথাব্যথা নেই। বিজেপির সাম্প্রদায়িক এবং জাতপাত-ধর্ম-বর্ণে বিরোধের নীতিতে মানুষের ঐক্য বিনষ্ট হচ্ছে।

তিনি বলেন, সিপিআই, সিপিএম, সিপিআইএমএলের মতো বামপন্থী দলগুলি ঐক্যবদ্ধ বামগণতান্ত্রিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য এস ইউ সি আই (সি)-র আহ্বানে সাড়া না দিয়ে কংগ্রেসের মতো একচেটিয়া মালিকের দল এবং আরজেডি-র মতো জাপপাত ভিত্তিক দলের সাথে হাত মিলিয়ে যেভাবে হোক দুয়েকটা আসন পাওয়ার চেষ্টা করছে। এতে বামপন্থী আন্দোলনের প্রভূত ক্ষতি হচ্ছে। কমরেড অরুণ কুমার সিং নির্বাচনের মধ্যেও গণআন্দোলনের শক্তি এস ইউ সি আই (সি)-কে শক্তিশালী করে তোলার জন্য জনসাধারণের কাছে আবেদন জানান।

 

                                          প্রার্থী তালিকা
ক্র. ন. বিধানসভার নাম প্রার্থীর নাম
বিহারীগঞ্জ কমরেড পঙ্কজ কুমার জয়সওয়াল
দ্বারভাঙা কমরেড মহম্মদ মুজাহিদ
কুরহানি কমরেড কালীকান্ত ঝা
মুজফফরপুর কমরেড অরবিন্দ কুমার
কাঁটি কমরেড লালবাবু রায়
পারু কমরেড নানহাক শাহ
সাহেবগঞ্জ কমরেড যাদবলাল প্যাটেল
হাজিপুর কমরেড ইন্দ্রদেব রায়
লালগঞ্জ কমরেড রাজেন্দ্র শর্মা
১০ বৈশালী কমরেড রামনাথ রায়
১১ রাজাপাকার কমরেড উমেশ রাম
১২ মহুয়া কমরেড ললিত কুমার ঘোষ
১৩ পাতেপুর কমরেড সোনেলাল পাসওয়ান
১৪ বেগুসরাই কমরেড অর্জুন কুমার
১৫ খাগাড়িয়া কমরেড জিতেন্দ্র কুমার
১৬ ভাগলপুর কমরেড রবি কুমার সিং
১৭ সুলতানগঞ্জ কমরেড নরেশ দাস
১৮ নাথনগর কমরেড শ্যাম কিশোর রাম
১৯ বেলহর কমরেড কবীন্দ্র পণ্ডিত
২০ তারাপুর কমরেড রঞ্জিত রাম
২১ মুঙ্গের কমরেড দেবানন্দ মণ্ডল
২২ জামালপুর কমরেড কামেশ্বর রঞ্জন
২৩ কুমরার কমরেড সূর্যকর জিতেন্দ্র
২৪ কারাকাট কমরেড লালবাহাদুর সিং
২৫ কুর্থা কমরেড রূপেশ কুমার
২৬ জাহানাবাদ কমরেড রাজু কুমার