Breaking News
Home / খবর / পিএফ-এ সুদ কমানো শ্রমজীবী জনগণের উপর তীব্র আঘাত

পিএফ-এ সুদ কমানো শ্রমজীবী জনগণের উপর তীব্র আঘাত

কেন্দ্রীয় সরকার এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ডে সুদ কমিয়ে মাত্র ৮.১ শতাংশ করেছে। যা বিগত চল্লিশ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম। এআইইউটিইউসি-র সাধারণ সম্পাদক কমরেড শঙ্কর দাশগুপ্ত ৪ জুন এক বিবৃতিতে বলেন, এইভাবে সুদ কমানোর ফলে ইতিমধ্যেই চরম আর্থিক দুর্দশার শিকার কোটি কোটি প্রভিডেন্ট ফান্ড গ্রাহক সহ সব স্তরের শ্রমজীবী মানুষের উপর এ এক মারাত্মক আঘাত।

তিনি বলেন, ইপিএফ-এর অছি পরষিদে এআইইউটিইউসি সহ ট্রেড ইউনিয়নগুলি এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানালেও কেন্দ্রীয় সরকার একতরফা ভাবে সুদ কমানোর সিদ্ধান্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের উপর চাপিয়ে দিল। চরম শ্রমিক বিরোধী এবং পুঁজিপতি তোষণকারী উদারীকরণ এবং ন্যাশনাল মনিটাইজেশন পাইপলাইন পরিকল্পনার অংশ হিসাবেই কেন্দ্রীয় সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সম্প্রতি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক যখন ব্যাঙ্কের সুদ বাড়িয়েছে, তখন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক পিএফ-এর সুদ বাড়িয়ে কর্মচারীদের স্বার্থরক্ষার বদলে ঠিক বিপরীত কাজটি করল। এছাড়া হাজার হাজার পিএফ গ্রাহকের জন্য অতিপ্রয়োজনীয় ন্যূনতম পেনশন বৃদ্ধির ন্যায্য দাবিতেও কেন্দ্রীয় সরকার কর্ণপাত করছে না।

পিএফ অছি পরিষদে এআইইউটিইউসি বারবার দাবি জানিয়েছে নামমাত্র ন্যূনতম পেনশন নয়, উপযুক্ত হারে তা বাড়াতে হবে। অথচ এই বিষয়টির ফয়সালা না করে সরকার ঝুলিয়ে রেখেছে। কমরেড শঙ্কর দাশগুপ্ত অবিলম্বে ন্যূনতম পেনশন বৃদ্ধির দাবি জানান। পিএফ সদস্য সহ সমস্ত শ্রমজীবী মানুষের কাছে এআইইউটিইউসি আহ্বান জানিয়েছে শ্রমিক-কর্মচারী বিরোধী এই জঘন্য সিদ্ধান্ত বাতিল করার জন্য দেশব্যাপী আন্দোলন গড়ে তুলুন।

গণদাবী ৭৪ বর্ষ ৪২ সংখ্যা ১০ জুন ২০২২