Breaking News
Home / খবর / পাঠকের মতামতঃ শিক্ষক ছাড়াই কি স্কুল চলবে?

পাঠকের মতামতঃ শিক্ষক ছাড়াই কি স্কুল চলবে?

২২ মার্চ বিধানসভার প্রশ্নোত্তর পর্বে একজন বিধায়কের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রীর দেওয়া তথ্য অনুসারে, বর্তমানে শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মীদের ৩ লক্ষ ৮৮ হাজার ১২০টি পদ শূন্য রয়েছে। ১ এপ্রিল, ২০২১ থেকে ২০২২-এর জানুয়ারি পর্যন্ত ২৪৮৩ জন প্রাথমিক শিক্ষক, ২৩৯১ জন উচ্চপ্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক এবং ৭১৮ জন শিক্ষাকর্মী অবসর নিয়েছেন। মন্ত্রীর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে প্রাথমিক স্তরে ১ লক্ষ ৯০ হাজার ৮৫টি, উচ্চ প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে ১ লক্ষ ৩৯ হাজার ২৯৫টি এবং উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে ২৩ হাজার ৭১১টি শূন্যপদ রয়েছে। তিন স্তরে মোট শিক্ষকের শূন্য পদের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৫৩ হাজার ৯১ জন। এছাড়া প্রধান শিক্ষকের ৫ হাজার ৮২৪টি এবং শিক্ষাকর্মী ২৯ হাজার ২০৫টি পদ শূন্য রয়েছে। শূন্যপদের মোট সংখ্যা হলো ৩ লক্ষ ৮৮ হাজার ১২০টি।

এত শূন্য পদ নিয়ে শিক্ষা চলছে কী করে? আজ একজন শিক্ষক অবসর গ্রহণ করলে, আগামীকালই কেন সেই শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগ হবে না? একদিনও কেন শিক্ষকের অভাবে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হবে ছাত্রছাত্রীরা? শিক্ষার অধিকার সরকার কি এভাবে কেড়ে নিতে পারে? এই নিয়োগশূন্যতা কার অনুপ্রেরণায়?

সরকারের উদ্দেশ্য কি? সরকারি শিক্ষাব্যবস্থাকে বেহাল করে দেওয়া! যাতে সরকারি শিক্ষাব্যবস্থার উপর জনগণের যতটুকু ভরসা অবশিষ্ট আছে সেটাও উঠে যায়! সবাই বেসরকারি শিক্ষার দিকে যায়।

 আব্দুল জলিল সরকার, হলদিবাড়ি

গণদাবী ৭৪ বর্ষ ৩৬ সংখ্যা ২৯ এপ্রিল ২০২২