Home / খবর / পাউচ প্যাকে সরকারি মদ বিক্রি : সিপিএম সরকারের ধারাতেই চলছে তৃণমূল সরকার

পাউচ প্যাকে সরকারি মদ বিক্রি : সিপিএম সরকারের ধারাতেই চলছে তৃণমূল সরকার

 

 

ফাইল চিত্র

এ বার তৃণমূল পরিচালিত রাজ্য সরকার পাউচ প্যাকে দিশি মদ বিক্রি করবে। সুলভ মূল্যে রাজ্যবাসী যাতে মদ কিনতে পারে, সে বিষয়ে সরকার অত্যন্ত তৎপর। অথচ এই তৎপরতার সামান্যতমও দেখা যায় না চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ সুলভমূল্যে পৌঁছে দেওয়ার জন্য।

সরকার চোলাই মদের কারবার বন্ধ করতে চায়, এই অজুহাতে চালু করছে মদের পাউচ প্যাক। এতে কি রাজ্য জুড়ে চোলাই মদের রমরমা আদৌ বন্ধ হবে? সরকার কি সত্যিই চোলাই মদ বন্ধ করতে চায়? চোলাইয়ের কারখানা, ঠেক সবই প্রশাসনের নজরদারিতেই চলে, এ কারও অজানা নয়। তাই বুঝতে অসুবিধা হয় না, সর্বনাশা মদের প্রসার রোধ করা নয়, মদের প্রসার ঘটানোই সরকারের লক্ষ্য।

বিগত সিপিএম সরকার রাজ্যে মদ বিক্রির ঢালাও লাইসেন্সদেওয়া শুরু করেছিল। পাউচ প্যাকে বিক্রির উদ্যোগ তারাই তখন নিয়েছিল, যার বিরুদ্ধে এস ইউ সি আই (সি) ও তার গণসংগঠনগুলি আন্দোলনে নেমেছিল। সিপিএম সরকারের সেই ধারাবাহিকতা বজায়রেখে তৃণমূল সরকার শুধু মদ বিক্রির নয়, মদ কারখানাখোলার ঢালাও লাইসেন্স দিতে শুরু করে, এবার সরকার নিজেই পাউচ মদ বিক্রির সিদ্ধান্ত নিল। এই কি সরকারের কাজ? লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব আদায় হয়, এই যুক্তিতেযে সরকার মদের প্রসার চায়,সে কি জনস্বার্থবাহী সরকার? এই কিছুদিন আগে আনলক পর্যায়ের শুরুতেই মদেরদোকানখোলার নির্দেশ জারি করে সরকার, এক্ষেত্রেকেন্দ্র ও রাজ্য দুই সরকারেরই দৃষ্টিভঙ্গি এক।যেন এটাই রাজ্যবাসীর প্রথম প্রয়োজন ছিল।

মদের প্রসার সমাজজীবনে সর্বনাশডেকে আনে, এ সরকারের অজানা নয়। কত পরিবারভেসে যায়, স্বাভাবিক জীবন তছনছ হয়ে যায়, রক্ত জল করা কষ্টের উপার্জন মদেরনেশায় উড়িয়ে দিয়ে সংসার নরক করেতোলেনেশাগ্রস্ত মানুষ, এ কিনেতা মন্ত্রীরা জানে না? মানুষ বাঁচল কি মরল এ নিয়ে সরকারের মাথাব্যাথানেই, সরকারের চিন্তা রাজস্ববৃদ্ধি নিয়ে।

সারাদেশ তথা রাজ্য জুড়ে যখন নারী নির্যাতনবেড়েই চলেছে,যে নারী নির্যাতনের ঘটনায় অধিকাংশক্ষেত্রেই মদেরনেশায় উন্মত্ত বিকৃতকাম পশুর লালসা প্রধান ভূমিকা নিচ্ছে, তখন প্রয়োজন ছিল প্রশাসনের কড়া হাতে মদের প্রসার বন্ধ করা, কিন্তু আমরাদেখছি বিপরীত চিত্র। সরকার নিজেই মাঠেনেমে পড়েছে মদ বিক্রি করতে।

সংসদীয় রাজনৈতিক দলগুলি এ বিষয়ে প্রতিবাদ করবে না, কারণ নীতিগত ভাবে তাদের কোন ফারাকনেই। তাই বিজেপি, সিপিএম, কংগ্রেস প্রতিদিন তৃণমূলের সমালোচনা করে চলেছে, কিন্তু এ বিষয়ে তাদের কোন প্রতিবাদ আন্দোলননেই। ভোট সর্বস্ব এই দলগুলো চায়, মদেরনেশায় যতবেশি মানুষ ডুবে থাকবে, তত তাদের সুবিধা। নির্বিরোধে তারাকেন্দে্র ও রাজ্যে রাজ্যে তাদের অপশাসন চালিয়ে যেতে পারবে। তাই, এরা কিছুই করবে না।

ফলে, মদের প্রসার বন্ধ করতে জনসাধারণকেই আন্দোলনে এগিয়ে আসতে হবে। এস ইউ সি আই(কমিউনিস্ট) মদ ও সমস্ত প্রকার মাদকদ্রব্য নিষিদ্ধ করার দাবিতে এ রাজ্য তথা  দেশ জুড়ে আন্দোলন গড়ে তুলছে, পাড়ায়-পাড়ায় মহল্লায়-মহল্লায় গণ কমিটি গড়ে তুলে এই আন্দোলনকে শক্তিশালী করার মধ্য দিয়ে মদ নিষিদ্ধ করতে সরকারকে বাধ্য করতে হবে।

(ডিজিটাল গণদাবী-৭৩ বর্ষ ১০ সংখ্যা_১০ নভেম্বর, ২০২০)