Breaking News
Home / আন্দোলনের খবর / ইউনিফর্ম বদল নয়, নার্সদের সমস্যা মেটানোটাই জরুরি

ইউনিফর্ম বদল নয়, নার্সদের সমস্যা মেটানোটাই জরুরি

হাসপাতালের নার্সরা যে বিশেষ সাদা পোশাকে গোটা বিশ্বজুড়ে পরিচিত, সে পোশাক প্রবর্তন করেছিলেন আধুনিক নার্সিং–এর প্রতিষ্ঠাতা ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল৷ পরবর্তীকালে কিছু কিছু হাসপাতালে নার্সদের পোশাকের রঙে পরিবর্তন ঘটানো হলেও, নার্স বলতে এখনও জনসাধারণ ওই ঐতিহ্যবাহী ক্যাপ–সহ বিশেষ সাদা পোশাকই বোঝেন৷

সম্প্রতি সরকারি হাসপাতালের নার্সদের পোশাক পরিবর্তনের কথা বলেছে রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য দপ্তর৷ বলেছে, বদলানো হবে রঙ৷ বাদ দেওয়া হবে ক্যাপ৷ হঠাৎ কেন এই পরিবর্তন?

নার্সদের সংগ্রামী সংগঠন ‘নার্সেস ইউনিটি’ নার্সদের পোশাক বদলানোর প্রতিবাদ জানিয়ে ৩১ মে কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে৷ তাঁদের বক্তব্য, ‘বিশেষ একটি নার্সিং সংগঠন নার্সদের পোশাকের রঙ সাদা থেকে নীল করতে চাইছে৷ টিভি চ্যানেলে শাসকদলের এক বিধায়ককেও এই রঙবদলের সমর্থনে কথা বলতে শোনা গেছে৷ আমরা নার্সেস ইউনিটির পক্ষ থেকে এটাকে অপ্রয়োজনীয় মনে করি৷’

নার্সেস ইউনিটি–র রাজ্য সম্পাদক পার্বতী পাল বলেন, ‘এ রাজ্যে সরকারি নার্সদের নানা সমস্যা রয়েছে৷ তাঁরা কর্মক্ষেত্রে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা পান না৷ নিয়মিত বেতন পান না৷ অন্যান্য সরকারি কর্মচারীদের সাপেক্ষে তাঁদের ১৩টি ছুটিও কমিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ রোগীপিছু নার্সের সংখ্যা অত্যন্ত কম৷ হাসপাতালের সার্বিক পরিকাঠামোর অভাবে রোগীর বিপদ হলে তার আত্মীয়দের হাতে নিগৃহীত হতে হয় নার্সদের৷ ইদানীং ট্রেনিং–এর সময় কর্তৃপক্ষের অতিরিক্ত চাপে অনেকে মানসিক ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন৷ কেউ কেউ এমনকী আত্মহত্যাও করেছেন৷ এই সব গুরুতর সমস্যার দিকে নজর দিলে সরকারি হাসপাতালের পরিষেবা উন্নত হয়৷ তা না করে, নার্সদের পোশাকের রঙ বদলে কী করতে চান তাঁরা? সাদা শান্তি ও স্বচ্ছতার প্রতীক৷ নার্সদের জন্য প্রচলিত ক্যাপ–সহ সাদা পোশাক নার্সিং–নৈতিকতা ও মর্যাদার সাথে অবিচ্ছেদ্য ভাবে জড়িত৷ এ পোশাক অত্যন্ত বিজ্ঞানসম্মত, উপযুক্ত এবং সম্মানীয় যা কর্মনিষ্ঠার গাম্ভীর্য ও মাধুর্যকে নির্মলতার সাথে বহন করে৷ এর পরিবর্তনে কী লাভ?’ সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সিস্টার প্রীতি তারণ, সিস্টার ভাস্বতী মুখার্জী, সিস্টার তুষা দাস প্রমুখ৷

(৭০ বর্ষ ৪২ সংখ্যা ৭জুন, ২০১৮)